ঢাকারবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

এই বাজেট দেশকে অন্ধকারে নিমজ্জিত করবে : মান্না

নিউজ ডেস্ক | সিটিজি পোস্ট
জুন ৭, ২০২৪ ১১:৪৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটকে লুটেরা সরকারের প্রতিচ্ছবি বলে বর্ণনা করেছেন নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না। এই বাজেট দেশের অর্থনীতিকে আরও গভীর অন্ধকারে নিমজ্জিত করবে।

বৃহস্পতিবার বাজেট ঘোষণার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এসব কথা বলেন তিনি।

মান্না বলেন, ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বেনজীর, আজিজ, এস আলমদের মতো সরকারের অলিগার্কদের লুটপাট, দুর্নীতির সুযোগ তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। বাজেটে জনগণকে নতুন করে লুট করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। নিয়মিত করদাতাদের যেখানে ৩০ শতাংশ পর্যন্ত কর দিতে হবে, সেখানে মাত্র ১৫ শতাংশ কর পরিশোধ করে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। সামান্য কর পরিশোধের বিনিময়ে অবৈধ সম্পদ বাড়ি, ফ্ল্যাট বৈধ করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মধ্যে যেখানে সংকোচন নীতি গ্রহণ করার কথা সেখানে মেগা প্রকল্পে বড় অংকের খরচের পরিকল্পনা করা হচ্ছে। যার বড় অংশই চলে যাবে সরকারের মদদপুষ্ট লুটেরাদের পকেটে। আর বোঝা বাড়বে জনগণের।

গণতন্ত্র মঞ্চের এই শীর্ষ নেতা বলেন, যেখানে দেশের ব্যাংকগুলো ভয়াবহ তারল্য সংকটে ভুগছে, সেখানে সরকার এই ব্যাংকগুলো থেকে নতুন করে বিপুল পরিমাণ ঋণ নেওয়ার কথা ভাবছে। দেশীয় ঋণের পাশাপাশি বৈদেশিক ঋণের বোঝা আরও বাড়ানো হবে যার নিচে পিষ্ট হবে সাধারণ মানুষ। বাজেটে ১ লক্ষ ২৮ হাজার কোটি টাকা রাখা হয়েছে ঋণের সুদ পরিশোধের জন্য। মূল্যস্ফীতি কমানোর কোনও পরিকল্পনা নেই। বরং এই বাজেট বাস্তবায়ন হলে দ্রব্যমূল্য কয়েকগুণ বৃদ্ধি পাবে।

নাগরিক ঐক্যের সভাপতি বলেন, জনগণের ওপর কর, শুল্কের বিশাল বোঝা চাপিয়ে অবাস্তব বাজেট ঘোষণা করে সরকার দেশের অর্থনৈতিক সংকট আড়াল করার চেষ্টা করছে। সামাজিক নিরাপত্তা, শিক্ষা, স্বাস্থ্যের অপ্রতুল বরাদ্দ দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য কোন কল্যাণ বয়ে আনতে পারবে না। এই বাজেটে অবৈধ লুটেরা সরকারের লুটপাটতন্ত্রই আরেকবার স্বীকৃতি পেয়েছে।