ঢাকারবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

জিপিএ-৫ এর দিকে সেরা তালিকায় চট্টগ্রামের কলেজিয়েট স্কুল

নিউজ ডেস্ক | সিটিজি পোস্ট
মে ১২, ২০২৪ ৯:৩৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শতভাগ পাসের তালিকা থেকে ছিটকে গেলেও জিপিএ-৫ এর দিকে সেরা তালিকায় নিজেদের আসন অক্ষত রেখেছে কলেজিয়েট স্কুলের শিক্ষার্থীরা। জিপিএ-৫ পাওয়া সেরাদের সেরা হয়েছে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল। শতবর্ষী এ বিদ্যালয় থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৭৪ জন পরীক্ষার্থী। যদিও  ৪৭৫ জন পরীক্ষার্থীর অংশ নিয়ে অকৃতকার্য হয়েছে একজন শিক্ষার্থী। যার কারণে শতভাগ পাসের তালিকা থেকে সরে যায় কলেজিয়েট স্কুল। 

জিপিএ-৫ প্রাপ্তির দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থান রয়েছে ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। এ বিদ্যালয়ে ৪৬৯ শিক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৩২ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল ৪৭৭ জন শিক্ষার্থী। এ বিদ্যালয়ের পাসের হার ৯৮ দশমিক ৩২ শতাংশ।

তালিকার তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে সরকারি মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়। গতবার শতভাগ পাসের তালিকায় সেরা দশে থাকলেও এবার শতভাগ পাসের তালিকাতেই স্থান পায়নি এ প্রতিষ্ঠান। তবে এ প্রতিষ্ঠানের ৪৪০ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে ৩১৫ জন পেয়েছে জিপিএ-৫। এ প্রতিষ্ঠানের পাসের হার ৯৯ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ।

জিপিএ ৫ এর দিক থেকে তালিকার চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। তাদের ৫৫১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। পাস করেছে ৫৪৬ জন। এরমধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৯৫ জন। এ প্রতিষ্ঠানের পাসের হার ৯৯ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ।

পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে নাসিরাবাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। তাদের ৪৩৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছে ৪৩৫ জন। এরমধ্যে জিপিএ-৫ ২৬১ জন পেয়েছে। শতভাগ পাসের তালিকা নেই সরকারি এই প্রতিষ্ঠানও।

তালিকার ষষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে নৌবাহিনী স্কুল এন্ড কলেজ। এ প্রতিষ্ঠানের ৫৩১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছে ৫২৬ জন। ৯৯ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ শিক্ষার্থী কৃতকার্য হয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৪৭ জন।

চট্টগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩০৮ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে কৃতকার্য হয়েছে ৩০৬ জন। এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২২৪ জন। জিপিএ ৫ এ সেরার তালিকায় এ স্কুলের অবস্থান সপ্তম। গতবারেও এ স্কুল ছিল সপ্তমের তালিকায়।

৯৮ দশমিক ৮২ শতাংশ কৃতকার্য হয়ে জিপিএ-৫ এর দিকে অষ্টম অবস্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। তাদের ৩৩৮ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। তাদের মধ্যে পাস করেছে ৩৩৪ জন। এ স্কুলের ২১২ জন পরীক্ষার্থী পেয়েছে জিপিএ-৫।

বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪৬৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে পাস করেছে ৪৪৩ জন। ৯৫ দশমিক ২৭ শতাংশ পরীক্ষার্থী কৃতকার্য হয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৮৭ জন। সেরা তালিকায় তারা রয়েছে নবম অবস্থানে।

জিপিএ-৫ এর দিকে সেরা দশের তালিকায় রয়েছে অপর্ণাচরণ সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। এ প্রতিষ্ঠানের ৫২৪ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এদের মধ্যে পাস করেছে ৫১৫ জন আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৬৩ জন।

প্রসঙ্গত, এবার চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮০ শতাংশ। গতবারের চেয়ে এবার পাসের হার ৪ দশমিক ৫১ শতাংশ বেশি। পরীক্ষায় অংশ নেওয়া ১ লাখ ৪৫ হাজার ৭৫৩ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ২০ হাজার ৮৭ জন। এই বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১০ হাজার ৮২৩ জন। গতবার যেখানে জিপিএ ৫ পেয়েছিল ১১ হাজার ৪৫০ জন। এবার পাসের হার বাড়লেও কমেছে জিপিএ ৫।