ঢাকাবৃহস্পতিবার, ১১ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

এ আর রহমানের ‘কারার ঐ লৌহ-কবাট’ অপসারণে হাইকোর্টের নির্দেশ

নিউজ ডেস্ক | সিটিজি পোস্ট
জানুয়ারি ৯, ২০২৪ ৩:৩৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

অস্কারজয়ী সংগীত পরিচালক এ আর রহমানের নতুন আঙ্গিকে কম্পোজ করা বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা বিখ্যাত গান ‘কারার ঐ লৌহ-কবাট’ সব ধরনের অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে অপসারণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আজ মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) এ আদেশ দেন আদালত।
গেলো বছরের ৬ ডিসেম্বর ফেসবুক, ইউটিউবসহ সব অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে এ আর রহমানের বিকৃত সুরে গাওয়া কাজী নজরুল ইসলামের ‘কারার ঐ লৌহ-কবাট’ গানটি অপসারণ করতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।

হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় বুধবার (৬ ডিসেম্বর) মানবাধিকার সংগঠন ল’ অ্যান্ড লাইভ ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট এবং বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের ১০ আইনজীবীর পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হুমায়ন কবির রিটটি দায়ের করেন।

রিটের নোটিশ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশে ফেসবুক, ইউটিউব, নেটফ্লিক্স, অ্যামাজন প্রাইমসহ সবধরনের ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ও ওয়েবসাইট থেকে এ আর রহমানের সুরে প্রকাশিত ‌‘কারার ঐ লৌহ-কবাট’ গানটি অপসারণ করতে বলা হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়েছে, কবি কাজী নজরুল ইসলামের অত্যন্ত জনপ্রিয় এবং ঐতিহাসিকভাবে সমৃদ্ধ ‘কারার ঐ লৌহ–কপাট’ গানটিতে অস্কারজয়ী ভারতীয় সংগীত পরিচালক এ আর রহমান নতুনভাবে সুরারোপ করেছেন। এটি ব্যবহার করা হয়েছে পিপ্পা নামের একটি হিন্দি চলচ্চিত্রে। এ আর রহমান গানের কথা ঠিক রাখলেও সুরের পরিবর্তন করেছেন। এই গান কবি নজরুলের নিজের সুরারোপিত ও সুপ্রতিষ্ঠিত। আমাদের সব বিপ্লব–বিদ্রোহ তথা আন্দোলন–সংগ্রামে অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে কাজ করেছে ‘কারার ঐ লৌহ–কপাট’।

এতে আরও বলা হয়, কাজী নজরুল ইসলাম বাংলাদেশের জাতীয় কবি। তিনি বিদ্রোহী কবি নামে পরিচিত। তার কবিতা আমাদের বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদ। নজরুলের কবিতার আসল সুর অক্ষুণ্ন রাখার দাবি জানানো হয়।