ঢাকাশুক্রবার, ১৭ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মীরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শিল্পজোনে শুরু হচ্ছে চার কারখানার যাত্রা

নিউজ ডেস্ক | সিটিজি পোস্ট
নভেম্বর ১৯, ২০২২ ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

মীরসরাইয়ে বঙ্গবন্ধু শিল্পজোনের ৪টি শিল্প কারখানা ও বেজার প্রশাসনিক ভবনসহ ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ শেখ হাসিনা সরণি এবং ২৩০ কেভিএ গ্রিডলাইন ও সাবস্টেশন আগামীকাল রোববার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সাথে এই শিল্পজোনে দৈনিক ৫০ মিলিয়ন লিটার পানি পরিশোধনাগারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী। আগামীকাল রোববার ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে এসব শিল্প কারখানার উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত ২৫ অক্টোবর এসব শিল্প ও অবকাঠামোর উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের কথা থাকলেও ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে ওই দিনের অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়েছিল।
স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে রোববার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সারাদেশে অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোর (ইজেড) ৫০টি শিল্প কারখানা, প্রকল্প ও অন্যান্য অবকাঠামো উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। বেজা আটটি ভেন্যুতে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে।

এই বিষয়ে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ ইউসুফ হারুন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের বিভিন্ন অর্থনৈতিক অঞ্চল ও বেজার আটটি স্থানে ভার্চুয়ালি ৫০টি শিল্প কারখানার উদ্বোধন করবেন। তিনি বলেন, এগুলোর মধ্যে রয়েছে চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগরের (বিএসএমএসএন) চারটি বাণিজ্যিক কারখানা এবং বেসরকারি উদ্যোগে পরিচালিত বিভিন্ন অর্থনৈতিক অঞ্চলের আটটি কারখানা।

বেজা চেয়ারম্যান বলেন, এ শিল্প কারখানাগুলোতে এরই মধ্যে ৯৬৭ দশমিক ৭৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করা হয়েছে এবং আরও প্রায় ৩৩১ দশমিক ২৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করা হবে। তিনি আরো জানান, প্রধানমন্ত্রী একই সাথে বিভিন্ন অর্থনৈতিক অঞ্চলের ২৯টি শিল্প কারখানার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। যেগুলোতে এখন পর্যন্ত ৬১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করা হয়েছে। আরও এক হাজার ৯২২ দশমিক ৩৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ প্রক্রিয়াধীন। ইজেডের যেসব স্থাপনা উদ্বোধন হতে যাচ্ছে
সেগুলোর মধ্যে রয়েছে বিএসএমএসএনের প্রশাসনিক ভবন, জামালপুর অর্থনৈতিক অঞ্চল, শ্রীহট্ট অর্থনৈতিক অঞ্চল ও সাবরাং পর্যটন পার্ক। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে বিএসএমএসএন-এ ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ শেখ হাসিনা সরণি, ২৩০-কেভিএ গ্রিডলাইন ও সাবস্টেশন উদ্বোধন করবেন।

এসময় শিল্পজোনের অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত থাকবেন সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমান, মীরসরাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিনহাজুর রহমানসহ বেজা ও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ। প্রধানমন্ত্রী এসময় এখানে একটি পানি শোধানাগারের ভিত্তিপ্রস্তরও স্থাপন করবেন। এটি দৈনিক ৫০ মিলিয়ন লিটার পানি পরিশোধন করতে সক্ষম।
যে শিল্প কারখানাগুলো উদ্বোধন করা হবে এগুলোর মধ্যে চারটি কারখানা বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে স্থাপিত। এগুলোর ইস্পাত কারখানা ও রঙ কারখানা রয়েছে। বেজা শিল্প, উৎপাদন ও রপ্তানি বহুমুখীকরণের মাধ্যমে দ্রুত অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশের সব পিছিয়ে পড়া ও সম্ভাবনাময় এলাকায় অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলবে।

পরিকল্পিত ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চলের মধ্যে সরকার এখন পর্যন্ত ৯৭টি অর্থনৈতিক অঞ্চলের অনুমোদন দিয়েছে। এর মধ্যে বর্তমানে ২৮টির কাজ চলছে। এখন পর্যন্ত ১২টি বেসরকারি মালিকানাধীন অর্থনৈতিক অঞ্চল ছাড়পত্র পেয়েছে এবং এ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে প্রায় চার বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করা হয়েছে। এক কোটি লোকের সরাসরি ও পরোক্ষভাবে কর্মসংস্থান অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোর লক্ষ্য। এছাড়া এ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বছরে ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানি হবে। অর্থনৈতিক অঞ্চলের বিনিয়োগকারীরা কর অবকাশ এবং শুল্কমুক্ত কাঁচামাল ও যন্ত্রপাতি আমদানির সুবিধা পাবেন।

বঙ্গবন্ধু শিল্পজোনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বিষয়ে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি বলেন, এই অর্থনৈতিক অঞ্চলে জাপান, চীন, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ড, জার্মানি, আমেরিকা, ব্রিটেন, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া ও নরওয়েসহ বিভিন্ন দেশের সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণ করেছে। আমি আশা করছি এই শিল্পজোনটি শুধু মীরসরাই নয় একদিন গোটা দেশকে নেতৃত্ব দিতে সক্ষম হবে।