ঢাকামঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বিএনপি নেতা ইশরাকের গাড়িবহরে হামলা

নিউজ ডেস্ক | সিটিজি পোস্ট
নভেম্বর ৫, ২০২২ ১২:৩২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বরিশালে বিভাগীয় গণসমাবেশে যাওয়ার পথে বিএনপি নেতা ইশরাক হোসেনের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

এসময় গাড়িতে থাকা বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী আহত হন। শুধু তাই নয়, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতকেও বরিশালে যেতে দেয়া হয়নি। গৌরনদী থেকে তার গাড়ি ঢাকার দিকে ঘুরিয়ে দেয়া হয়েছে।

শনিবার সকালে বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বরিশালে গণসমাবেশের উদ্দেশে ঢাকা থেকে গাড়ি বহর নিয়ে যাত্রা করেন।

কিন্ত পথিমধ্যে অনেক বাধার শিকার হয় তার গাড়ি বহরটি। একসময়, গাড়ি বহরটি বরিশালের কাছাকাছি গৌরনদীর মাহিরা বাজারে পৌঁছালে সেখানে দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হয়। ইশরাক হোসেন অক্ষত থাকলেও করা হয় তার পেছনে থাকা তারই বহরের বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। তখন সেইসব গাড়িতে থাকা বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী আহত হন।

ইশরাক হোসেন বলেন, ‘ আমাদের সমাবেশগুলোতে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ সরকারকে ভীত করেছে। গণজোয়ার আটকাতে না পেরে সমাবেশস্থলে যাওয়ার পথে পথে স্থানীয় আওয়ামী লীগ-যুবলীগ এবং ছাত্রলীগ দিয়ে বাধার সৃষ্টি করছে, কাপুরুষের মতো রাতের আধারে গাড়িবহরে চোরাগুপ্তা হামলা করে পালিয়ে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে আমাদের নেতা-কর্মীদের মনে ভীতি সঞ্চারের অপচেষ্টা করছে সরকার। কিন্তু আমরা দমে যাবার পাত্র নই। সকল বাধা মোকাবিলা করে ঠিকই সমাবেশস্থলে এগিয়ে যাচ্ছি।’

যত হামলা করুক না কেন, কোন বাধাই এবার বিএনপি নেতা-কর্মীদের দমাতে পারবে না বলেও জানান তিনি।

বহরে হামলায় যেসব বিএনপি নেতা আহত হয়েছেন, তারা হলেন- ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির ৩৮ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক সহিদুল হক সহিদ, ৩৮ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা মামুন ভূঁইয়া রকি, ৩৮ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা কর্মী মো. রাসেল, মো. বাবুল ও খোকন। ৪০ নং ওয়ার্ড বিএনপি নেতা ইমরান, ৪২ নং ওয়ার্ড যুবদল সদস্য সচিব মাসুদ রানা এবং সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রদল নেতা রকি ও আল আমিন।

এদিকে সমাবেশে যোগ দেওয়ার পথে মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতকেও বাধা দেওয়া হয়েছে। গৌরনদী থেকে তার গাড়ি ঢাকার দিকে ঘুরিয়ে দেয়া হয়েছে।

বিএনপি মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, বরিশালের বিভাগীয় গণসমাবেশে অংশ নিতে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাত ঢাকা থেকে বরিশাল যাওয়ার পথে গৌরনদী বাসস্ট্যান্ডে বাধার শিকার হন। সেখানে ৫০/৬০ জন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার গাড়ি থামিয়ে হামলার হুমকি দেয়। গালিগালাজ করে তাকে ঢাকায় ফিরে যেতে বলে।