ঢাকাসোমবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সাফের ফাইনালে শক্তিশালী ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক | সিটিজি পোস্ট
আগস্ট ৪, ২০২২ ৯:২৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সিনিয়র জাতীয় ফুটবল দলে সাফল্য নেই অনেক দিন। মাঝে মধ্যে বয়সভিত্তিক দলে সাফল্য আসে। আগামীকাল সেই রকম আরেকটি সাফল্যের হাতছানি। সাফ অ-২০ চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপার জন্য নামবে বাংলাদেশ। সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের সামনে বাধা শক্তিশালী স্বাগতিক ভারত। ভুবনেশ্বরের কালিঙ্গা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় শুরু হবে ম্যাচটি।

 

আগের ম্যাচে শাহীদুল ইসলাম লাল কার্ড দেখায় ফাইনালে খেলতে পারবেন না তিনি। শ্রীলঙ্কা বিপক্ষে একমাত্র জয়সূচক গোলদাতা মিরাজুল ইসলামের চোট রয়েছে। তবে তাতেও আত্মবিশ্বাসে কমতি নেই পুরো দলের। দলটির কোচ পল স্মলি বলেন, ‘এটা ফুটবল বিশ্বে স্বাভাবিক ঘটনা। এই বাস্তবতার সঙ্গে মেনে নিতে হবে।’

দলের ম্যানেজার বিজন বড়ুয়া জানালেন, সেই দুইজন ছাড়াই ফাইনালে ভারতকে হারানোর ক্ষমতা রাখে বাংলাদেশ। বললেন, ‘শহীদুল ইসলাম গত ম্যাচে লালকার্ড পেয়েছে। মিরাজুল ইসলামের একটু ইনজুরি আছে। এর বাইরে সবাই সুস্থ আছে। তবে আমার মনে হয়, আমাদের দলে যত খেলোয়াড় আছে, তারা ১৯-২০, এখানে কোনও সমস্যা হবে না। কোচও সেভাবে পরিকল্পনা সাজাবেন। আশা করি, ফাইনাল আমরা জিতবো।’

 

শ্রীলংকা, ভারত ও মালদ্বীপকে হারানোর পর নেপালের সঙ্গে ড্র করে অপরাজিত হয়েই ফাইনালে উঠে আসে পিয়াস আহমেদ নোভারা। আজ সেই ভারত, যাদেরকে তারা গ্রুপ পর্বে একবার হারিয়েছে। আগামীকাল আরও একবার হারিয়ে শিরোপা জিতে দেশে ফিরতে চায় লাল সবুজের যুবারা। ভারতের মাটিতে ভারতের বিপক্ষে ফাইনাল খেলা বেশ কঠিন। ছেলেদের উদ্বুদ্ধ করতে পলের বক্তব্য, ‘দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা অবশ্যই চাপ ও চ্যালেঞ্জিং। আমার ফুটবলাররা সেটা নিতে পারবে।’

 

বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার ও সাবেক ফুটবলার বিজন বড়ুয়া বলেন, ‘শুরু থেকেই আমাদের দলটা ভারসাম্যপূর্ণ ছিল এবং আমি এটা আগে থেকে বলে আসছি। আমি নিজেও খেলোয়াড় ছিলাম। এই ছেলেদের অনুশীলন দেখেই বুঝতে পেরেছিলাম যে, এরা ফাইনালে খেলবে। অনুশীলনে সব খেলোয়াড় উজ্জীবিত ছিল।’ শিরোপা জিততে প্রত্যয়ী অধিনায়ক তানভীর হোসেনও।